Breaking News

উড়ন্ত পাখির মত ক্যাচ নিয়ে ম্যাচ জেতালেন নুরুল হাসান সোহান

১৫৪ রান তারা করতে নেমে শুরুতেই বাংলাদেশি বোলারদের উপর চড়াও হয়। তাস্কিনের ১ম ওভারেই ১২ রান সংগ্রহ করে ওমানের ২ ব্যাটার। মুস্তাফিজের দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে এলবিডাব্লিও এর ফাদে পরে আকিব ইলিয়াস।

এর পর ব্যাটে আসে কাশ্যপ প্রজাপতি। ওমানের ব্যাটারদের রীতিমত বোকা বানান মুস্তাফিজ। মুস্তাফিজের পঞ্চম বলে বিশাল এক ছক্কা মারেন কাশ্যপ প্রজাপতি।

এরপর বোলিংয়ে আসে সাইফউদ্দিন। তার বলে গালিতে ক্যাচ মিস করে ফিজ। সাকিবের বলে রিভারসুইপে ৪ মারে যতিন্দর সিং।

সাকিবের ১ম ওভারে ৭ রানের বেশি নিতে পারে নাই দুই ব্যাটার। সাইফউদ্দিনের পাঁচ নুম্বার বলে আর একটি ৪ মারে। পরের ওভারেই আবারো বোলিংয়ে আসে মুস্তাফিজ। তার প্রথম বলে সহজ ক্যাচ মিস করে মাহমুদউল্লাহ।

মুস্তাফিজের ৩য় ডেলিভারিতে আউট হইয়ে সাজ ঘরে ফেরেন কাশ্যপ প্রজাপতি। দুরুত গতিতে রান তুলে যাচ্ছে এমানের ব্যাটাররা

তাসকিন আহমেদ থেকে জীশান মাকসুদএর আবারো ৬ । মাহেদি হাসানের বোলিংয়ে মুস্তাফিজের অসাধারন এক ক্যাচে সাজ ঘরে ফিরে যায় জীশান মাকসুদ।

এর পর ব্যাটে আসেন আয়ান খান। সাকিবের ওভারে আবারো বাউন্ডারি হাকান যতিন্দর সিং। এর পরই সাকিবের বলে লিটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি।

নিজের ৩য় ওভারে এসে উইকেটের দেখা পান সাইফউদ্দিন। তারপরই সাকিবের জোড়া আঘাতে জয়ের ধারায় ফিরে আসে বাংলাদেশ।

মুস্তাফিজের দুর্দান্ত এক কাটারে সোহানের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন কালিমুল্লাহা । তার এক বল পরেই আবারো উইকেটের দেখা পান এই কাটার মাস্টার

তাসকিনঃ ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে কোন উইকেটের দেখা পাননি তিনি

মুস্তাফিজঃ নিজের ৪ ওভারে ৩৬ রান খরচ করে ৪ টি উইকেট তুলে নেন তিনি

সাইফউদ্দিনঃনিজের ১ম ওভারে ২ রান খরচ করেন তিনি নিজের ৪ ওভারে এসে ১৬ রান দিয়ে উইকেটের দেখা পান সাইফউদ্দিন

সাকিবঃ ৪ ওভারে ২৮ রান দিয়ে মূল্যবান ৩ উইকেট তুলে নেন

শেখ মাহেদিঃ ৩ ওভারে ৮ রান দিয়ে তুলে নেন ১টি উইকেট

সর্বশেষ স্কোরঃ ১২৭/৯ ২০ ওভার শেষে

Check Also

টাইগার শোয়েব : মাশরাফি ভাইকে দলে ফেরানো হোক

হারের বৃত্ত থেকে বের হয়ে আসতে পারছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পাকিস্তানের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *